fbpx

Daily Sylheter Somoy

অক্টোবর ১, ২০২০

মাছ বিক্রেতা থেকে কাটিপতি নূরুল হক : থেমে নেই টোকেন বাণিজ্যে

মাছ বিক্রেতা থেকে কাটিপতি নূরুল হক : থেমে নেই টোকেন বাণিজ্যে

নিজস্ব প্রতিবেদক
সিলেটের জৈন্তাপুরে চলছে সিএনজি-অটোরিকশায় টোকেন বাণিজ্য। বৈধ-অবৈধ সিএনজি-অটোরিকশায় টোকেন বিক্রি করে প্রতি মাসে ২০ লাখ থেকে ২৫ লাখ টাকা আদায় করছেন সিএনজি চালক সমিতি নামে ভুঁইফোঁড় সংগঠনের নেতারা। ফলে প্রতি বছর রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট ও কানাইঘাট উপজেলার প্রশাসনের গাফিলতির কারণে বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ যান চলাচল। বন্ধ হচ্ছে না সড়ক দূঘর্টনা ও লাশের মিছিল। শ্রমিক নেতারা টোকেনের টাকার একটি বড় অংশ পুলিশের পকেটে যাওয়ার দাবি করলেও পুলিশ এসব অস্বীকার করছে।
সিএনজি-অটোরিকশা মালিকরা জানান, সিলেট-তামাবির মহাসড়কে জাফলং, তামাবিল, গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, জৈন্তাপুর সহ বিভিন্ন উপজেলার লোকজন সিলেটে যাতায়াত করেন। কাগজপত্র ও ফিটনেস বিহিন সিএনজি-অটোরিকশা বর্তমানে মহাসড়কে চলাচলে নিষেধাজ্ঞার কারণে বিপাকে পড়েন মহাসড়কের পাশের এলাকার বাসিন্দারা। অবৈধ যানবাহন রোধে দায়িত্বরত প্রশাসনিক কর্তা-ব্যক্তি, চাঁদাবাজ ও টুকেনবাজরা এ রোডে অবৈধ যানবাহন চলাচলের সুযোগ করে দিতে টোকেন চালু করেছে সিএনজি চালক শ্রমিক নামদারি জৈন্তাপুর উপজেলার ৫নং ফতেপুর (হরিপুর) ইউনিয়নের হরিপুর এলাকাধীন বালিপাড়া গ্রামের চাঁদাবাজ নূরুল হক (মেম্বার)। বিনিময়ে প্রতি মাসে অবৈধ যানবাহন থেকে কামাই করছেন লাখ-লাখ টাকা। ৫ বছর আগে হরিপুর মাছ বাজারের ব্যাগ বিক্রেতা নূরুল হক এখন কোটিপতি। তার সাথে এক শ্রেণির পুলিশের পকেটও ভারি হচ্ছে। আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সরকার, চালক ও মালিকরা।
সরেজমিন অনুসন্ধানে দেখা গেছে, সিলেট তামাবিল রোডে বৈধ যানবাহনের তিনগুন বেশি অবৈধ যানবাহন। যার সংখ্যা সাড়ে দুই হাজারেরও বেশি। এগুলোর মধ্যে সিএনজি অটোরিক্সার সংখ্যা প্রায় দেড় থেকে ৩ হাজার। বাদ বাকি অবৈধ লেগুনা ইমা, ও পিকাপ। এসব যানবাহনের মধ্যে অধিকাংশের রেজিস্ট্রেশন পর্যন্ত নেই, নেই চালকদের ড্রাইভিং লইসেন্সও। শুধুমাত্র ‘পরিচিতি টুকেনই’ এসব যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন ও চালকদের মূল লাইসেন্স।
শ্রমিক ইউনিয়নের তথ্য মতে, সিলেটের জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, জাফলং সহ ৩ উপজেলায় প্রায় সাড়ে দুই থেকে ৩হাজার সিএনজি অটোরিকশা চলাচল করে। এর মধ্যে প্রায় ২ হাজার সিএনজি অটোরিকশা নিবন্ধনহীন। ২০১৫ সালের ১ আগস্ট থেকে মহাসড়কে সব ধরনের তিন চাকার যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার। অটোরিকশার চালকরা জানান, নিবন্ধনহীন প্রায় ২ হাজার চালককে বাধ্যতামূলক মাসিক টোকেন নিতে হয়। এভাবে প্রতিটি সিএনজি চালকদের কাছ থেকে প্রাতি মাসে ৮শ থেকে ১হাজার টাকা আদায় করা হচ্ছে। সে হিসেবে সাড়ে ২ হাজার সিএনজি থেকে চাঁদা তোলা হয় আরও প্রায় ২০-২৫ লাখ টাকা।
আরও জানা যায়, ৩ উপজেলার এসব সিএনজি অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ করে হরিপুর বাজার সিএনজি অটোরিকশা চালক সমিতি সভাপতি বালিপাড়া গ্রামের মরহুম আব্দুল মনাফ ওরফে গাছ মনাফের পুত্র নূরুল হক মেম্বার। নূরুল হক এর সাথে আর কারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের ব্যাপারে ভয়ে মুখ খুলতে নারাজ সাধারণ চালকরা। নূরুল হক ওরফে মেম্বার নিজেকে অবৈধ ও রেজিস্ট্রিবিহীন সিএনজি অটোরিক্সার লাইসেন্স দাতা দাবি করে থাকে। ভূয়া ও বেআইনী টুকেন দিয়ে এ রোডে সিএনজি অটোরিক্সার অবৈধ চলাচল ও যাত্রীবহন চালু করে রেখেছে। তার দেয়া শ্রমিক টুকেন গাড়ির গ্লাসে লাগানো থাকলে আইনশৃংখলা রক্ষাকারীদের কোন সংস্থাই এ গাড়ি আটকায় না। নূরুল হকের দেয়া টুকেন দেখলে পুলিশ গাড়ি না আটকালেও পুলিশ স্বীকার করে না এ টুকেন তাদের। নূরুল হক নিজেকে ১৭ পরগনা তথা জৈন্তাপুর, কানাইঘাট ও গোয়াইনঘাট এই তিন উপজেলার সিএনজি অটোরিক্সা মালিক সমিতির সভাপতি দাবি করে থাকে। অথচ অনুসন্ধানে সে পরিবহন সেক্টারের কোন সংগঠনের বৈধ সভাপতি কিংবা দায়িত্বশীলও নয়। একটি লাঠিয়াল সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে রাহাজানি করে অবৈধ যানবাহন থেকে জোর করে আদায় করে থাকে সে। এমনকি টাকা দিয়ে তার কাছ থেকে টুকেন না নিয়ে কোন গাড়ি পাম্প থেকে তেল-গ্যাসও নিতে পারে না। নূরুল হক নিজেকে মালিক সমিতির সভাপতি ও নিজেকে পুলিশ-প্রশাসনের এজেন্ট দাবি করে থাকে। এ দাবিতে জৈন্তাপুর উপজেলা হরিপুর বাজারে একটি অফিস খোলে দেদারছে চাঁদাবাজি ও টুকেন বানিজ্য করলেও তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না। নূরুল হক সব সময় বলে বেড়ায় সে প্রশাসক সহ প্রশাসনের সব সেক্টরে এ টাকার ভাগ দিয়েই টুকেন ব্যবসার অনুমতি নিয়েছে। তাই তার দেয়া পরিচিতি টুকেন নিতে পারলেই সিলেট-তামাবিল, সিলেট জাফলং ও সিলেট-কানাইঘাট রোডে যানবাহন চালাতে হবে। অন্যথায় কেউই কোন প্রকার গাড়ি চালাতে পারেবে না বলে জানায় সে। তবে অবৈধ টুকেন বানিজ্যে নূরুল হক একা নয়, এ কাজে তার সহযোগী রয়েছে আরো কয়েকজন।
নূরুল হক জানান, রেজিস্ট্রেশনকৃত অটোরিকশা গুলো মহাসড়ক পারাপারে পুলিশি হয়রানির শিকার থেকে বাঁচতে টোকেন ব্যবহার করছে। প্রত্যেক বাজারে বাজারে আমাদের সমিতির সভাপতি আছে তাদের মাধ্যমে এই টুকেন বিক্রয় করি। সে এক পর্যায়ে তিনি বলেন, আমার সাথে সদর উপজেলার একজন ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসহ অনেক প্রভাবশালীরা রয়েছেন। তিনি সিলেটের অনেক দৈনিক পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালের মালিক দাবি করে বলেন আপনারা পত্রিকায় লিখে কি করবেন। আমার কিছুই করতে পারবেন না।
সিলেট তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ এসব টোকেন বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত নয় বলে দাবি করে বলেন, আমরা এসবের বিরুদ্ধে মামলা নিচ্ছি।

Sharing is caring!


সর্বশেষ সংবাদ

শাস্তি হওয়া সেই মুসলিম খেলোয়াড় যা বললেন

শাস্তি হওয়া সেই মুসলিম খেলোয়াড় যা বললেন

অনলাইন ডেস্ক ইসরাইলের অ্যাথলেটের বিপক্ষে খেলায় অংশ না নেওয়ায় আলজেরিয়ার মুসলিম খেলোয়াড় কেথি নুরিনকে প্রতিযোগিতার মাঝ পথেই দেশে পাঠিয়ে দেওয়া

রাজ কুন্দ্রার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

রাজ কুন্দ্রার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

অনলাইন ডেস্ক পর্নো ভিডিও তৈরি ও অ্যাপের মাধ্যমে সরবরাহের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী ধনকুবের

তালেবান মোকাবেলায় নতুন পদক্ষেপ আফগান সরকারের

তালেবান মোকাবেলায় নতুন পদক্ষেপ আফগান সরকারের

অনলাইন ডেস্ক আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়ছে তালেবান যোদ্ধারা। চলমান অস্থিরতা কমাতে দেশটিতে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করেছে আফগান

রাতে আসছে ২৫০ মোবাইল ভেন্টিলেটর

রাতে আসছে ২৫০ মোবাইল ভেন্টিলেটর

অনলাইন ডেস্ক করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দিতে ২৫০টি মোবাইল ভেন্টিলেটর মেশিন উপহার হিসেবে পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী একদল চিকিৎসক। শনিবার রাতে এগুলো

বিয়ানীবাজারে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী আহত অর্ধশত

বিয়ানীবাজারে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী আহত অর্ধশত

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি: বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগরে তিনদিন আগে ঘটে যাওয়া তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার দুই গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটেছে।

মাধবপুরে র‌্যাবের অভিযানে ২০ কেজি গাঁজা উদ্ধার

মাধবপুরে র‌্যাবের অভিযানে ২০ কেজি গাঁজা উদ্ধার

হবিগঞ্জ (মাধবপুর) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের মাধবপুরে র‌্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ শীর্ষ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-৯। গত শুক্রবার

বিএনপি নেতা আব্দুস সাত্তারের ইন্তেকালে খন্দকার মুক্তাদিরের শোক

বিএনপি নেতা আব্দুস সাত্তারের ইন্তেকালে খন্দকার মুক্তাদিরের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি, বিশিষ্ট সালিশ ব্যক্তিত্ব, প্রবীণ বিএনপি নেতা ও নগরীর কায়েস্তরাইল এলাকার বাসিন্দা আব্দুস সাত্তারের (৭২)

সুনামগঞ্জে হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে রাস্তায় বাচ্চা প্রসব : এলাকায় তোলপাড়

সুনামগঞ্জে হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে রাস্তায় বাচ্চা প্রসব : এলাকায় তোলপাড়

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জে এক প্রসূতি নারী হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা না পেয়ে অবশেষে রাস্তায় বাচ্চা প্রসব করেছেন বলে খবর পাওয়া

shares