fbpx

Daily Sylheter Somoy

সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

৮৬ বছরে এই প্রথম যা ঘটতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেটে

৮৬ বছরে এই প্রথম যা ঘটতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেটে

করোনাভাইরাস বদলে দিচ্ছে পরিচিত অনেক দৃশ্য। বহুদিন ধরে চলে আসা অনেক কিছুর বদল ঘটছে অতিমারির প্রকোপে। ভারতীয় ক্রিকেটেও এক অভাবনীয় ব্যাপার ঘটছে। ৮৬ বছর ধরে ভারতীয় ক্রিকেটের অবিচ্ছেদ্য অংশ বাদ পড়ছে করোনার কারণে।

১৯৩৪-৩৫ মৌসুম থেকে ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতা রঞ্জি ট্রফি। যে টুর্নামেন্টে খেলে ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা নামগুলো তারকা হয়েছেন। যে টুর্নামেন্ট জন্ম দেয় নতুন তারকার। সেটিই এ বছর আয়োজন করা নিয়ে রয়েছে ঘোরতর সংশয়। বিভিন্ন রাজ্য দলের এই আয়োজন এবার ব্যাহত হতে পারে করোনা মহামারির কারণে।

আইপিএলের কারণে ইদানীং জৌলুশ হারালেও ভারতীয় ক্রিকেটে রঞ্জি ট্রফির অবস্থান খুব শক্ত। ৩৮টি দলের এ টুর্নামেন্টে ক্রিকেটাররাও বেশ ভালোই রোজগার করে থাকেন। করোনা পরিস্থিতিতে যে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করার বাধ্যবাধকতা তৈরি হয়েছে—রঞ্জি ট্রফি ভারতীয় ক্রিকেটের বর্ষপঞ্জি থেকে বাদ পড়তে পারে এ কারণে। আইপিএল ৮টি দলের জন্য জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করা যতটা সহজ, রঞ্জির ৩৮ দলের জন্য তা করা যথেষ্ট কঠিন বলেই মনে করছেন ভারতীয় ক্রিকেটের প্রশাসকেরা।

এমন একটা পরিস্থিতিতে বিসিসিআইয়ের কর্তাব্যক্তিরা দফায় দফায় বৈঠক করছেন। আলোচিত হচ্ছে নানা বিষয়। সারা দেশে রঞ্জি ট্রফি আয়োজন না করে দুই-একটা শহরে আয়োজন করা যায় কিনা, সে বিষয় খতিয়ে দেখা হয়েছে। কিন্তু ৩৮ দলের এ টুর্নামেন্টে প্রতি দলে ২০ জন করে ধরলেও মোট ক্রিকেটারের সংখ্যা হয় ৭৬০। এক বিপুলসংখ্যক ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফের জন্য জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করা প্রায় অসম্ভব বলেই মনে করছেন তারা।

ভারতের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিও রঞ্জি ট্রফিকে সংশয়ে ফেলছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৪ হাজারেরও বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ভারতজুড়ে। এ অবস্থায় যেকোনো ধরনের ঘরোয়া খেলাধুলা আয়োজনকে বিপজ্জনক মনে করেন সবাই। আগামী দুই-এক মাসের মধ্যে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে রঞ্জি ট্রফি আয়োজন এবার বাদই দিয়ে দেবে বিসিসিআই। এদিকে রঞ্জি ট্রফি না হলে গভীর সংকটে পড়ে যাবেন ঘরোয়া ক্রিকেটাররা। অনেক ক্রিকেটার আছেন, যারা আইপিএলে সুযোগ পান না, তারা রোজগারহীন অবস্থাতেই পড়ে যাবেন রঞ্জি না হলে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় সারা দুনিয়ায় যখন খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল, তখনও রঞ্জি ট্রফি চালু ছিল। এর পর কত ঘটনাই ঘটেছে। উপমহাদেশ বিভক্ত হয়েছে। ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হয়েছে একাধিকবার। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয়েছে, অজস্র রাজনৈতিক সংঘাত-সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু রঞ্জি ট্রফি মাঠে গড়ানো কখনো বন্ধ করা যায়নি। এবার করোনাভাইরাসের জন্য ধারাটা থেমে যেতে পারে।

Sharing is caring!


সর্বশেষ সংবাদ

সিলেটে আসছেন মির্জা ফখরুল

সিলেটে আসছেন মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট আসছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আগামী ২৪ ও ২৫ অক্টোবর দুদিন তার সিলেট সফর করার

মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জায়গা দখলের অভিযোগ

মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জায়গা দখলের অভিযোগ

লন্ডন প্রতিনিধি সিলেট সিটি করপোরেশনে মেয়র আরিফুল হকের বিরুদ্ধে লন্ডনে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় হোয়াইটচ্যাপলের

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)

অনলাইন ডেস্ক আজ ১২ই রবিউল আউয়াল। পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। ১৪৪৩ বছর আগের এই দিনে আরবের পবিত্র মক্কা নগরীতে বিশ্বনবী

ওমানকে হারালো বাংলাদেশ

ওমানকে হারালো বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক নিজের শেষ ওভারে জোড়া আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। এতে ১৭ ওভার শেষে ওমানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১০৭/৭-এ। চার

প্রতিবন্ধীদের ভোগান্তি কমিয়ে আনতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রতিবন্ধীদের ভোগান্তি কমিয়ে আনতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, সমাজের একটা অংশ (ডিসএবিলিটি বা প্রতিবন্ধিতা যাই বলি না কেন) নানা কারণে ভুগছে।

কুমিল্লায় হামলার মাস্টারমাইন্ডকে গ্রেফতার করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কুমিল্লায় হামলার মাস্টারমাইন্ডকে গ্রেফতার করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেছেন, কুমিল্লায় মন্দিরে হামলার মাস্টারমাইন্ডকে ইতোমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো বিবৃতিতে

কানাইঘাটে দেড় মাসেও সন্ধান মিলেনি নিখোঁজ ওলিউর রহমানের

কানাইঘাটে দেড় মাসেও সন্ধান মিলেনি নিখোঁজ ওলিউর রহমানের

কানাইঘাট প্রতিনিধি কানাইঘাট উপজেলার ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির পাত্রমাটি গ্রামের নিখোঁজ ওলিউর রহমান (৩১)’র সন্ধান এখনো মিলেনি। গত ৩১ আগস্ট তিনি সিলেট

কানাইঘাটে মাল্টা চাষে সফল কৃষক মুহাম্মদ আলী

কানাইঘাটে মাল্টা চাষে সফল কৃষক মুহাম্মদ আলী

কানাইঘাট প্রতিনিধি কৃষক মুহাম্মদ আলী ছোট কাল থেকে বাবার সাথে কৃষি কাজে জড়িত ছিলেন। এরপর জীবনের তাগিদে তরুণ বয়সে পাড়ি