fbpx

Daily Sylheter Somoy

অক্টোবর ১, ২০২০

জার্মানিতে একশ বাড়ির মালিক এই বাংলাদেশী

জার্মানিতে একশ বাড়ির মালিক এই বাংলাদেশী

অনলাইন ডেস্ক:-

মাত্র ১৬ বছর বয়সে লেখাপড়ার পাশাপাশি হোটেলে কাজ শুরু করেন যুবরাজ তালুকদার৷ ২১ বছর বয়সে নিজের জমানো টাকা দিয়ে কেনেন প্রথম বাড়ি৷ এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি৷ এখান জার্মানির আবাসন খাতে পরিচিত মুখ তিনি। থাকেন দেশটির বন শহরে। তার বাড়ির সংখ্যা একশর বেশি।

তবে বড় কোনো বিনিয়োগ নিয়ে এই খাতে ব্যবসা শুরু করেননি তালুকদার৷ নিজের সাম্রাজ্য গড়েছেন পুরোটাই নিজের চেষ্টায়, কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে৷ ১৯৯১ সালে আবাসন ব্যবসা শুরু করেন তিনি৷ এই বিষয়ে তালুকদার বলেন, ‘১৬ বছর বয়স থেকে লেখাপড়ার পাশাপাশি আমি হোটেল কাজ করতাম৷ এবং পরবর্তীতে ইঞ্জিনিয়ারিং খাতে চাকুরি করে যে বেতন পেয়েছিলাম সেগুলো আমার বাবাকে দিতে হয়নি৷ আমি সেগুলো সেভ করেছি৷ আব্বা কখনো বলেননি যে, আমার রোজগার থেকে তাকে খরচের টাকা দিতে হবে৷ টাকা জমা করে প্রথমে একটা বাড়ি নিলামে কিনি মাত্র সাড়ে ছয় হাজার ইউরো দিয়ে৷ মানে ১৯৯১ সালের তের হাজার মার্ক৷ সেই টাকা দিয়েই ব্যবসা শুরু করি৷’

আবাসন খাতে যুবরাজ তালুকদারের ব্যবসার ধরণ কিছুটা ভিন্ন৷ তিনি মূলত পুরনো ঘরবাড়ি বিভিন্ন ব্যাংক, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে নিলামে কেনেন৷ কেনার পর সেগুলো সংস্কার করে ভাড়া দেন৷ তার কর্মী সংখ্যা ছয়জন৷ তিনি বলেন, ‘সাধারণত ১৯৬০-১৯৭০ সালে বানানো, মানে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে বানানো বাড়িগুলো কিনি আমি৷ সেসব ভবনে টাইলস, বেসিন, কমোড, বিদ্যুতের লাইন – এসব পুরনো থাকে৷ আপনি যদি কোনো কোম্পানিকে দিয়ে এগুলো ঠিক করতে যান তাহলে উদাহরণস্বরূপ এক হাজার বর্গফুটের বাড়িতে নূন্যতম ৪০ হাজার ইউরো খরচ হবে৷ আর সেই কাজ আমি যদি কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে নিজে করি, তাহলে আমি অর্ধেক খরচে সেটা করতে পারবো৷’

কখনো কখনো দু’তিনশ বছরের পুরনো ঐতিহাসিক বাড়িও কেনেন যুবরাজ৷ সেগুলো অবশ্য সংস্কার করতে হয় বিশেষ কিছু নিয়ম মেনে৷ এ ধরনের বাড়ির বাইরের অংশের ডিজাইনে কোন পরিবর্তন করা যায়না, তবে ভেতরটা নিজেদের মতো করে বদলে নেয়া যায়৷

কেনার পর বিক্রি নয়, ভাড়া

জার্মানিতে একটি বাড়ি কেনার পর তা দশ বছরের মধ্যে বিক্রি করে দিলে অনেক কর দিতে হয়৷ মূলত এই খাতে স্থিতিশীলতা ধরে রাখতে সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ তালুকদার তাই বাড়ি কিনে সংস্কার করে ভাড়া দেন৷ বর্তমানে তার মালিকানায় থাকা সব ঘর-বাড়িই জার্মানির বন-কোলন অঞ্চলে অবস্থিত৷

আবাসন খাতে নতুন বিনিয়োগের পাশাপাশি আরো কিছু খাতে ব্যবসা শুরুর চেষ্টা করছেন তিনি৷ সম্প্রতি কোলন-বন বিমানবন্দরের কাছে চালু করেছেন একটি ইটালীয় রেস্তোরাঁ৷ তিনি বলেন, ‘এই বিল্ডিংটা যখন বিক্রি হলো, তখন রেস্তোরাঁ নয়, একটি অ্যাসেট হিসেবে এটি কিনেছিলাম৷ তখন এটি একটি চীনা রেস্তোরাঁ ছিল৷ আমার এক বন্ধু তখন বলল এখানে একটি ইটালীয় রেস্তোরাঁ করা যায়৷ গতবছর আমরা এটি চালু করি৷’

নিজের ব্যবসা দেখাশোনার জন্য সারাদিনই বন-কোলন অঞ্চলে ঘুরতে হয় যুবরাজ তালুকদারকে৷ সম্প্রতি কোলনের একটি আদালতে ‘অনারারি জাজ’ হিসেবেও নিয়োগ পেয়েছেন তিনি৷ এই বিষয়ে তালুকদার বলেন, ‘আমাকে জার্মান সরকার অনারারি জাজ হিসেবে কোলনের ফাইনান্স কোর্টে দায়িত্ব দিয়েছে পাঁচ বছরের জন্য৷ সেখানে কোনো কেস এলে তিনজন সরকারি জাজ এবং দু’জন অনারারি জাজ বসে কেসটা তদন্ত করা হয়৷ সবকিছু বোঝার পরে আমাদের পাঁচজন বসে অন্তত তিনজন যেদিকে রায়টা দিতে চায়, সেদিকে রায় দেয়া হয়৷’

জার্মানিতে সফল এই ব্যবসায়ী বাংলাদেশের আবাসন খাতেও বিনিয়োগ করতে চেয়েছিলেন৷ তবে নানা আইনি ও দাপ্তরিক জটিলতায় সেখানে সুবিধা করতে পারেননি৷ এখন অবশ্য জানালায় ব্যবহারের উপযোগী বিশেষ এক ধরণের নেট তিনি বাংলাদেশে রপ্তানি করছেন৷

জার্মানিতে নানারকম সামাজিক কর্মকাণ্ডেও যুক্ত আছেন যুবরাজ তালুকদার৷ বন শহরে একটি মসজিদ তৈরি করেছেন তিনি৷ ভবিষ্যতে ব্যবসা-বাণিজ্য সন্তানদের বুঝিয়ে দিয়ে সমাজসেবায় আরো মনোযোগী হতে চান এই বাংলাদেশী-জার্মান ব্যবসায়ী৷

Sharing is caring!


সর্বশেষ সংবাদ

সিলেট চেম্বারের সংবাদ সম্মেলন সোমবার

সিলেট চেম্বারের সংবাদ সম্মেলন সোমবার

সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালনা পরিষদের ২০২২ ও ২০২৩ মেয়াদের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন উপলক্ষে আগামী ২৯ নভেম্বর সোমবার সকাল

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে মঙ্গলবার সিলেটে বিভাগীয় প্রতিবাদ সমাবেশ

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে মঙ্গলবার সিলেটে বিভাগীয় প্রতিবাদ সমাবেশ

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুর ২টায় রেজিষ্টারী মাঠে বিএনপির সিলেট বিভাগীয় প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

‘বিপ্লবী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অগ্রসেনানী ছিলেন ডা. এম এ করিম’

‘বিপ্লবী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অগ্রসেনানী ছিলেন ডা. এম এ করিম’

এদেশের সাম্রাজ্যবাদ সামন্তবাদ আমলা মুৎসুদ্দি পুঁজিবিরোধী জাতীয় গণতান্ত্রিক বিপ্লবের আপোসহীন অকুতোভয় দৃঢ়চেতা সাহসী জননেতা জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সভাপতি এবং সাপ্তাহিক

ফেঞ্চুগঞ্জে স্টেডিয়াম ও ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ হবে : এমপি হাবিব

ফেঞ্চুগঞ্জে স্টেডিয়াম ও ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ হবে : এমপি হাবিব

সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব বলেছেন, ফেঞ্চুগঞ্জে একটি স্টেডিয়াম ও একটি ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য আমি কাজ করে যাচ্ছি।

মদীনাতুল উলুম মুহাম্মদপুর মাদ্রাসার ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠান সম্পন্ন

মদীনাতুল উলুম মুহাম্মদপুর মাদ্রাসার ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠান সম্পন্ন

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের মুহাম্মদপুর গ্রামে মদীনাতুল উলুম মুহাম্মদপুর মাদ্রাসার ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার (২৭ নভেম্বর) মাদ্রাসার

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেটের মাসিক সাধারণ সভা

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেটের মাসিক সাধারণ সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক আজ শনিবার সকালে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেট-এর কার্যকরী কমিটির মাসিক সাধারণ সভা সিলেট ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালের সম্মেলন

নূরল আমীন’র ‘ভাটি বাঙলার উচ্ছ্বাস’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

নূরল আমীন’র ‘ভাটি বাঙলার উচ্ছ্বাস’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

অধ্যাপক নূরল আমীন’র ‘ভাটি বাঙলার উচ্ছ্বাস’ কবিতাবই প্রকাশিত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় কাকলী শপিং সেন্টারে বুনন প্রকাশনির নিজস্ব অফিসে আমন্ত্রিত অতিথিরা

নিরাপদ সমাজ উন্নয়ন সংস্থার ১৬তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী ও পদক প্রদান সম্পন্ন

নিরাপদ সমাজ উন্নয়ন সংস্থার ১৬তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী ও পদক প্রদান সম্পন্ন

বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরের সামাজিক সংগঠন নিরাপদ সমাজ উন্নয়ন সংস্থা ১৬ বছর পেরিয়ে ১৭ বছরে পদার্পন করেছে। সংগঠনটির ১৬তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার দিনব্যাপী