fbpx

Daily Sylheter Somoy

সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০

বিয়ানীবাজারে বোপরোয়া মাতাব মোল্লার ক্যাডাররা আবারও তৎপর ভূমি জবরদখলে

বিয়ানীবাজারে বোপরোয়া মাতাব মোল্লার ক্যাডাররা আবারও তৎপর ভূমি জবরদখলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার দুবাগ ইউনিয়নে রাষ্ট্রীয় ভাবে নিষিদ্ধ ঘোষিত জামায়াত ইসলামী রাজনৈতিক দলের প্রভাবশালী নেতা ও চিহ্নিত ভূমি দস্যু, খুনি, সন্ত্রাসীদের গডফাদার একাধিক মামলার আসামী মাতাব মোল্লা বাহিনীর প্রধান মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার সকল অপকর্মের সহযোগী তারই চাচাতো ভাই জামায়াতের ইউনিয়ন শাখার শুরা সদস্য শিব্বির আহমদ সহ তার বাহিনীর ক্যাডারদের অন্যায় অত্যাচার ও নির্যাতনে দিশেহারা হয়ে পড়ছেন এলাকার সহজ সরল নিরীহ দুর্বল মানুষ। এমনকি সংখ্যালঘুরাও ওই বাহিনীর ক্যাডারদের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না বলে জানা যায়। তাদের ভয়ে অনেকে নিজের ভিটে বাড়ী ছেড়ে ভারত সহ অন্যত্র চলে যাওয়ার চেষ্টারও অভিযোগ রয়েছে।
স্থানীয় ভূক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, প্রভাবশালী জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডারদের অপকর্মের চিত্র ইতিপূর্বে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচার হয়। তাদের সকল অপকর্মের দ্বায় ও আইন শৃংখলা বাহিনীর হাত থেকে গ্রেপ্তার এড়াতে কিছু দিন গাঁ ডাকা দিয়ে থাকে। কিন্তু প্রভাবশালী ও অর্থবিত্ত্বে বিত্তশালী হওয়ায় ইদানিং এলাকায় ফিরে এসে অদৃশ্য শক্তির বলে স্থানীয় প্রশাসনকে ধুকা দিয়ে বোকা বানিয়ে আইন কানুনের তোয়াক্কা না করে এলাকার নিরীহ সংখ্যা লঘুরা সহ সাধারণ মানুষের ভূমি জবর দখলে আবারও তৎপর হয়ে উঠছে। ওই বাহিনীর ক্যাডাদের ভয়ে কেউ মুখ খোলে প্রতিবাদ করার সাহস পর্যন্ত পাচ্ছে না।
শুধু তাই নয়, করোনা ভাইরাস জনিত রোগ কোভিড-১৯) এর মরণব্যধির ভয়াবহতায় গোটা বিশ্বের মত দেশের মানুষ যখন অস্তিরতা বিরাজ করছিল। আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা ওই করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ কল্পে প্রতিরোধমূলক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে যখন ব্যস্ততম সময় পার করছিল আর করোনার ভয়ে বিনা প্রয়োজনে মানুষ যখন বাড়ী থেকে বের হচ্ছেল না। তাই ওই সময়টাই নিরাপদে নির্বিঘ্নে ভূমি জবর দখলের সবচেয়ে বড় একটা সুবর্ণ সুযোগ মনে করছিল ভূমি দস্যু জামায়াত নেতা মাতাব মোল্লা বাহিনীর ক্যাডাররা। তাই ওই সুযোগে আদালতের রায়কে উপেক্ষা করে স্থানীয় প্রবীন মুরব্বী আব্দুল গণী, ছানাউর রহমান ছানু মিয়া ও আব্দুর রউফের মালিকানাধীন স্বত্ব দখলীয় ভূমি জবর দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকিয়া ব্যর্থ হয়ে তাদেরকে প্রাণ নাশের হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মামলা সূত্রে ও অনুসন্ধান কালে, উপজেলার চরিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল বারীর ছেলে আব্দুল গণী, ঢেউনগর গ্রামের মৃত তৈয়ব আলীর ছেলে ছানাউর রহমান (ছানু মিয়া) ও ফতেহপুর গ্রামের ওয়াতির আলীর ছেলে আব্দুর রউফ অভিযোগ করে বলেন, চরিয়া মৌজার জেএল নং ৪১, এসএ খতিয়ান নং ১৪২, এসএ দাগ নং ৫০১ এর রেকর্ডীয় মালিক আমির আলীর ছেলে আব্দুল কাদিরের নিকট হতে গত ৫/৮/০৮ইং তারিখে ২০২৬নং রেজিষ্ট্রারী দলিল মূলে পৌনে আট শতক ভূমি, আব্দুর রউফ ও ছানাউর রহমান ছানু মিয়া ও অপর রেকর্ডীয় মালিক আবজান বিবির ছেলে রফিক উদ্দিনের নিকট হতে গত ২৬/৮/০৮ইং তারিখে ২২০০নং রেজিষ্ট্রারী দলিল মূলে আড়াই শতক ভূমি আব্দুর রউফ ও আব্দুল গনী খরিদা সূত্রে উভয় দলিলে এক্ষুনে ১০ শতক আমন রকম ভূমি, বর্তমানে দোকান ভিট রকম ভুমির মালিক বটে।
বর্তমানে তারা ৪৯৯/০৯-১০ইং নামজারী মোকদ্দমার মূলে আলাদাভাবে তাহাদের নামে ৭১৩নং খতিয়ান ভুক্ত করাইয়া যথারীতি নিয়মিত খাজনা পরিশোধ পূর্বক ভোগ দখলে রয়েছেন বলে দাবী করেন।
প্রাপ্ত তথ্যে জানাযায়, আব্দুল গণী, ছানাউর রহমান ছানু মিয়া ও আব্দুর রউফ খরিদা সূত্রে প্রাপ্য ভূমি জকিগঞ্জ রোড জিরো পয়েন্ট নামক স্থানে ১০ শতক ভূমিটুকু জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লার বাড়ী পার্শ্ববর্তী থাকায় ওই সুবাদে জামায়াত নেতা মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যডাররা ভুয়া জাল কাগজ পত্র সৃষ্টি করে জবর দখলের পায়তারা করছে। এব্যাপারে প্রবীন মুরব্বি আব্দুল গণী ছানাউর রহমান ছনু মিয়া ও আব্দুল রউফ বাদী হয়ে উপজেলার চরিয়া গ্রামের মৃত আব্দুস শহিদের ছেলে জামায়াত নেতা ভূমিদস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা, কামাল আহমদ, বেলাল আহমদ, হেলাল আহমদ, আতাব আহমদ, জুনেদ আহমদ, কবির আহমদ, মৃত আব্দুল কাইয়মের ছেলে জামায়াতের শুরা সদস্য শিব্বির আহমদ, মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে নজরুল ইসলাম, মৃত রইছ আলীর ছেলে জবেদ আলী, আশরাফ আলী, আইয়ুব আলী, মঞ্জুর আহমদ ও গুজুকাটা গ্রামের সাতির আলীর ছেলে বাবুল আহমদ, মৃত আব্দুল মালিকের ছেলে আলা উদ্দিন, বদরুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে আদালতে একটি স্বত্ব মামলা দায়ের করেন। যাহা স্বত্ব মামলা নং ২৭/১৪ইং এর দীর্ঘ শুনানীর পর সহকারী জজ আদালত বিয়ানীবাজার সিলেটের বিচারক নিরঞ্জন কুমার মিত্র গত ৩০/১১/১৮ইং তারিখের মামলার বাদী আব্দুল গণী, ছানাউর রহমান ছানু মিয়া ও আব্দুর রউফ গংদের পক্ষে রায় এবং ৭/১১/১৮ইং তারিখে ডিক্রি আদেশ ঘোষনা করেন। কিন্তু জামায়াত নেতা, ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা বিজ্ঞ বিচারিক আদালতের রায়কে প্রত্যাখান করে। মুল মোকদ্দমায় সার সংক্ষেপ ও বিচারর্য বিষয়ে বিচারিক মাপ কাটিতে বিবেচনা না করে এবং বিচেনায় না নিয়া ভ্রান্ত রায় ও ডিক্রি প্রদান করছেন এবং আব্দুল গণি, ছানাউর রহমান ছানু ও আব্দুর রউফের পক্ষের রায় ও ডিক্রি রহিত করার লক্ষে গত ৬/১/১৯ইং তারিখে জেলা জজ আদালত সিলেটে একটি স্বত্ব আপিল মোকদ্দমা দায়ের করে। যা আপিল মোকদ্দমা নং ৩/২০১৯ইং। বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রহিয়াছে। এরপরও জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডাররা ওই ভূমি আত্মসাৎ ও জবর দখল সহ তাদেরকে হত্যা করার কু-অভি প্রায়ে লিপ্ত রয়েছে। যে কোন মুহুর্তে তাদেরকে হত্যা করে ভূমি জবর দখল করবে বলে হুমকি দিচ্ছে। স্থানীয় ভুক্তভোগী প্রবীন মুরব্বি আব্দুল গণী ছানাউর রহমান ছানু মিয়া ও আব্দুর রউফ জানিয়েছেন।
অপর এক সংখ্যালঘু উপজেলার চরিয়া গ্রামের মৃত ললিত মোহন দাসের ছেলে জগদীশ দাস ক্ষোভ প্রকাশ করে অভিযোগ করে বলে, তিনি পেশায় একজন দিন মজুর, দিন মজুরের কাজ করে যা পেতেন তা দিয়ে স্ত্রী সন্তানাদি নিয়া বেশ সুখেই দিন কাটাচ্ছিলেন। সেই সুখ আর তার কপালে বেশি দিন ঝুটেনি। কয়েক বছর পূর্বে তার বশত ভিটে মাটি নদী ভাঙ্গনে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। অতপর অসহায় ওই সংখ্যালঘু পরিবারের এক টুকরো জমি ছিল জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লার বাড়ীর সংলগ্ন। সেই জমিতে একটি ঘর তৈরী করে স্ত্রী সন্তানাদির নিয়া বসবাস করার স্বপ্ন দেখছিলেন তিনি। সেই স্বপ্ন ও পুরণ হতে দেয়নি মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডাররা। তার শেষ সম্বল মাথা গুজার ঠাই সেই জমিটুকুও জবর দখল করে নেয় তারা। মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডাররা প্রান নাশের ভয় ভীতি দেখাইয়া এলাকা ছাড়া করে ওই সংখ্যালঘু পরিবারটিকে। বর্তমানে ওই অসহায় পরিবারটি উপজেলার মেওয়া এলাকায় আখরার আশ্রয়ে রহিয়াছে।
এখানেই শেষ নয়, উপজেলার ঢেউনগর গ্রামের এক কালের জমিদার সংখ্যালঘু পরিবারের মৃত দিগেন্দ্র নাথ জমিদারের ছেলে দিলীপ কুমার দাস অভিযোগ করে বলেন, চরিয়া মৌজার জেএলনং ৪১, এসএ খতিয়ান নং ২৯৫, এসএ দাগ নং ৫০৮, পরিমাণ ৪০ শতক ও ১০৬৬ দাগে ৬২ শতক, উভয় দাগে ১.০২ একর ভূমি যথারীতি মিউটেশন করে নিয়মিত খাজনা পরিশোধ পূর্বক বংশানুক্রমে মালিক ও ভোগ দখলকার বটে। সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ও সহকারী কমিশানর ভূমি থেকে পর পর দুটি মামলার রায়ের মাধ্যমে তারা প্রতিষ্ঠিত। অভিযোগ রয়েছে দিলীপ কুমার দাস টাকার প্রয়োজনে জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লার পিতা, মৃত আব্দুস সহিদের নিকট বন্ধক রেখে ১৫ হাজার টাকা ঋন গ্রহণ করেন। পরে তা পিতা আব্দুস সহিদ মারা গেলে এই সুবাদে ওই ভূমির ভূয়া জাল কাগজ পত্র সৃষ্টি করে খরিদ সুত্রে মালিক দাবী করে জবর দখল করে নেয় মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডাররা।
স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে আরও জানা যায়, জামায়াত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডাররা জামায়াত বিএনপির ঘাড়ে ভর করেই এই সমস্ত অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। তারা সংখ্যালঘু বা এলাকার নিরীহ মানুষের কোথায় কার রাস্তার পাশে, বাজারের পাশে, বেশি মূল্যের জমি জমা ঘরবাড়ী দোকান পাঠ আছে। ঐ সমস্ত জমি দেখে ভূয়া জাল কাগজ পত্র সৃষ্টি করে প্রথমে জমির মালিকদের নানা কৌশলে প্রতারণা করে ভূমি বা অর্থ হাতিয়ে নেয়া। তা না হলে ভয় ভীতি প্রদর্শন করে ভূমি জবর দখল করা, তাও যদি সম্ভব না হয় তবে ওই ভূমির মালিকদের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা মোকদ্দমায় জড়াইয়া অযথা হয়রানী ও আর্থিক ক্ষতিগ্রস্থ করা ও জেল জুলুমের ভয়ভীতি দেখিয়ে তাদের ভূমি আত্মসাৎ জবর দখল করা তাদের একমাত্র পেশা। তাছাড়া ভূমি জবর দখলের জন্য নিজেস্ব ক্যাডার বাহীনিতো আছেই বটে। খোজ নিয়ে জানা যায় এলাকার নিরীহ দুর্বল মানুষ ও সংখ্যালঘুরা জামাত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডারদের আতংকে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভোগছেন। আলোচিত জামাত নেতা ভূমি দস্যু মাতাব উদ্দিন মোল্লা ও তার বাহিনীর ক্যাডারদের দ্বারা জবর দখলকৃত ভূমি উদ্ধার সহ তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন ভোক্তভোগী ও সংখ্যালঘুরা সহ এলাকার নিরিহ সাধারণ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।
এব্যাপারে জামায়াত নেতা মাতাব মোল্লা বাহিনীর প্রদান মাতাব উদ্দিন মোল্লার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে গেলে তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেন নাই।

Sharing is caring!


সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বনাথে মাদক সম্রাট তবারক’ আলী গ্রেফতার

বিশ্বনাথে মাদক সম্রাট তবারক’ আলী গ্রেফতার

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে কুখ্যাত মাদকের কারবারি, হত্যাসহ একাধিক মাদক মামলার আসামি তবারক আলী ওরফে ‘পলিথিন তবারক’কে গ্রেফতার করেছে

জগন্নাথপুরে আশংকা জনকভাবে বাড়ছে করোনা: নতুন করে আরো ২১ জন আক্রান্ত

জগন্নাথপুরে আশংকা জনকভাবে বাড়ছে করোনা: নতুন করে আরো ২১ জন আক্রান্ত

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আশংকাজনক ভাবে করোনা প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে উপজেলার জনসাধারন। গত ৭২ ঘন্টায় নতুন করে ২১

টাইগারদের সিরিজ জয়

টাইগারদের সিরিজ জয়

অনলাইন ডেস্ক সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও শামিম হোসেনের ব্যাটিং নৈপুণ্যে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করা বাংলাদেশ, টি-টোয়েন্টি

৬ দিনে ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা

৬ দিনে ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা

অনলাইন ডেস্ক অনলাইনে নিবন্ধন ছাড়াই গ্রামে বয়স্কদের অগ্রাধিকার দিয়ে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। এ লক্ষ্যে ৬দিনব্যাপী টিকার ক্যাম্পেইন

গোয়াইনঘাটে ১১জনের করোনা পরিক্ষায় সনাক্ত ৫ জন

গোয়াইনঘাটে ১১জনের করোনা পরিক্ষায় সনাক্ত ৫ জন

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি : গেল ২৪ ঘন্টায় সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স করোনা ভাইরাস কোভিড -১৯ নমুনা পরিক্ষা করা হয় ১১জনের।

উপজেলা যুবদল হতে বহিস্কার হলেন শফি খান

উপজেলা যুবদল হতে বহিস্কার হলেন শফি খান

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক শফি খানকে বহিস্কার করা হয়েছে। দলীয় শৃঙ্খরা ভঙ্গের অভিযোগ এনে তাকে দলের সব ধরনের

মদ খেয়ে বেপরোয়া ড্রাইভিং, গুরুতর আহত অভিনেত্রী

মদ খেয়ে বেপরোয়া ড্রাইভিং, গুরুতর আহত অভিনেত্রী

অনলাইন ডেস্ক সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তামিল অভিনেত্রী যশিকা আনন্দ। তবে তার এক বন্ধু ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। শনিবার মধ্যরাতে

কান্দাহারে ঘরবাড়ি ছেড়েছে ২২ হাজার পরিবার

কান্দাহারে ঘরবাড়ি ছেড়েছে ২২ হাজার পরিবার

অনলাইন ডেস্ক কান্দাহার প্রদেশে তালেবানের হামলা ও হত্যাযজ্ঞ থেকে বাঁচতে প্রায় ২২ হাজার পরিবার ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে। রোববার এই তথ্য

shares