fbpx

Daily Sylheter Somoy

সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

সিলেট আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি থাকছে চমক : যে দুই পদ নিয়ে জল্পনা

সিলেট আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি থাকছে চমক : যে দুই পদ নিয়ে জল্পনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
কেন্দ্রের কড়া নির্দেশে মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই গঠন করা হয়েছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি। ইতোমধ্যে এই দুই ইউনিটের পূর্ণাঙ্গ কমিটির খসড়া তালিকা কেন্দ্রীয় দপ্তরে জমা দেয়া হয়েছে। গত রবিবার জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ খসড়া কমিটি জমা দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান। আর গত সোমবার রাতে মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ খসড়া কমিটি কেন্দ্রীয় দপ্তরে জমা দেন মহানগরের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় একটি সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সুত্র আরো জানায়, সপ্তাহ খানেকের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে এই কমিটি অনুমোদন দিতে পারে কেন্দ্রীয় সংসদ। সিলেট আওয়ামী লীগের বিশ্বস্ত সুত্র জানিয়েছে, নবীন-প্রবীণের সম্মিলনে গঠন করা এই দুই ইউনিটের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদে এবার থাকছে চমক। গত কমিটির সক্রিয় নেতাদের পাশাপাশি কমিটিতে স্থান পাচ্ছেন একাধিক সাবেক ছাত্রনেতা ও দুঃসময়ের নির্যাতিতরা।
বর্তমান কমিটির আগের দুটি কমিটিতে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগে খুব কম নতুন মুখের স্থান হয়েছিল। তবে এবারের কমিটিতে নতুন অনেকেই চমক হিসেবে স্থান পাচ্ছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে গত ৫ই ডিসেম্বর সিলেট আওয়ামী লীগে জল্পনার অবসান হয়। সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা অনেক চিন্তা-ভাবনা করেই নতুন ‘ফরম্যাট’ তৈরি করেন। আর ওই ফরম্যাটেই ঘোষিত হয় জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের নাম। নতুন কমিটিতে জেলার সভাপতি হয়েছিলেন এডভোকেট লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। আর মহানগরের সভাপতি হয়েছিলেন মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন। এই চার পদ থেকে বাদ পড়েছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের দীর্ঘদিনের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ, জেলার সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও মহানগর সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ। এই ৩ জনকে একসঙ্গে বাদ দেয়ার বিষয়টি ছিল আওয়ামী লীগের সিলেট সম্মেলনের ‘চমক’। ফলে নতুন কমিটি ঘোষণা হওয়ার কারণে সকল জল্পনার অবসান হয়েছিলো।
দীর্ঘ ৯ মাসে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি। এজন্য দায়ী করা হয়েছিলো করোনাকে। মহামারি করোনার কারণে বিলম্ব হয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে। শেষে চলতি মাসের শুরুতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে বাকি থাকা অর্ধাঙ্গ কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশ দেন। তার এই নির্দেশনার পর সিলেট আওয়ামী লীগে কমিটি গঠনের তোড়জোড় শুরু হয়। সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন- কেন্দ্রের নির্দেশনার আলোকে ইতিমধ্যে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির খসড়া প্রস্তুত করে দায়িত্বশীলরা ঢাকায় চলে গেছেন। আজ-কালের মধ্যে তারা কমিটি কেন্দ্রের কাছে উপস্থাপন করে অনুমোদন করে নিয়ে আসবেন। এদিকে- কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার খবরে সিলেটে উৎসাহ উদ্দীপনার পাশাপাশি ক্ষোভও বিরাজ করছে। বিশেষ করে দুই কমিটির দুই পদ নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা সিলেটে। চলছে জল্পনাও। এই দুটি পদ হচ্ছে দুই কমিটির ‘সিনিয়র সহ-সভাপতি’ পদ। মূল যুদ্ধ হচ্ছে এ দুটি পদকে ঘিরে। দলীয় নেতারা জানিয়েছেন- জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ঘোষণার পর নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তদের প্রতি একটি বিশেষ নির্দেশনা ছিল কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের। ওই নির্দেশনার মধ্যে ছিল- জেলার সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে বাদ পড়া সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরীকে যেন সিনিয়র সহ-সভাপতি পদটি দেয়া হয়। তার এই নির্দেশনার পর শফিকুর রহমান চৌধুরী ও তার বলয়ে স্বস্তি ফিরে আসে। কিন্তু জেলার দায়িত্বশীলদের কেউ কেউ ওই পদে শফিকুর রহমান চৌধুরীকে চাচ্ছেন না। শফিক-আনোয়ার দ্বন্দ্বের জের ধরে সিলেট আওয়ামী লীগ থেকে শফিকুর রহমান চৌধুরীকে ‘মাইনাস’ করার প্রক্রিয়া চালানো হয়। তবে- তার আগেই জেলার সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর নাম চলে আসে। শফিকুর রহমান চৌধুরী পারিবারিক কাজে লন্ডন থাকার সুবাদে লবিংয়ে অনেক এগিয়ে যান মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি। জেলার নেতাদেরও আনুকূল্য পান তিনি। জেলা আওয়ামী লীগের এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন- ইতিমধ্যে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কমিটির খসড়া চূড়ান্ত করা হয়েছে। এই কমিটিতে সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে শফিকুর রহমান চৌধুরী ও মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর নাম রাখা হয়েছে। এভাবে তারা কেন্দ্রের কাছে কমিটি উপস্থাপন করছেন। কেন্দ্রীয় নেতারা সিদ্ধান্ত নেবেন কে হবেন- সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। সিলেটের নেতারা দ্বান্দ্বিক পর্যায়ে না গিয়ে সিদ্ধান্তের বিষয়টি কেন্দ্রের ওপর চাপিয়ে দিয়েছেন। আর বিতর্ক এড়াতেই বিষয়টি করা হয়েছে বলে জানান ওই নেতা। এদিকে- সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগেও সিনিয়র সহ-সভাপতি পদ নিয়ে কাড়াকাড়ি চলছে। তবে- মহানগরের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ইতিমধ্যে কমিটি খসড়া চূড়ান্ত করে ঢাকার পথে রয়েছেন। তারাও আজ-কালের মধ্যে কমিটি কেন্দ্রের কাছে জমা দেবেন। এরপর অনুমোদন দিলে সেটি প্রকাশ করা হবে। মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন- মহানগরের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে এবার অন্যতম দাবিদার ছিলেন সাবেক কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলাউর। আবার এই কমিটিতে সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদকে অন্তর্ভুক্ত করা দরকার। এ কারণে মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে আসাদ উদ্দিন আহমদের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আর ফয়জুল আনোয়ার আলাউরকে সহ-সভাপতির কাতারে অনেক পরে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের একাংশে ক্ষোভ বিরাজ করছে। তারা জানিয়েছেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদের ভাই আসাদ উদ্দিন আহমদ। এক ভাই সভাপতি, আরেক ভাই সিনিয়র সহ- সভাপতি বিষয়টি মানছেন না অনেকেই। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা ফয়জুল আনোয়ার আলাউর জানিয়েছেন- কমিটি গঠন করতে হলে কয়েকজন সিনিয়র নেতাকে নিয়ে বসতে হয়। আলোচনা করতে হয়। কিন্তু এবার এটা করা হয়নি। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মিলে কমিটি গঠন করেছেন। এতে করে অনেক ত্যাগী নেতা কমিটি থেকে বাদ পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আবার অনেক হাইব্রিড নেতা এসে ঢুকতে পারে। তিনি বলেন- কমিটি এমন হওয়া উচিত যাতে দল শক্তিশালী হয়। মনে রাখতে হবে- আগামী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নতুন কমিটিকেই কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে।
২০১৯ সালের ৫ ডিসেম্বর নগরীর আলীয়া মাদ্রাসা ময়দানে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে মহানগরে সভাপতি প্রার্থী ছিলেন ৪ জন, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন ১২ জন এবং জেলার সভাপতি প্রার্থী ছিলেন ৭ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
পরে সমঝোতার মাধ্যমে সম্মেলনে ঘোষিত কমিটিতে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হন মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক হন মহানগরের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক পদে সদ্য সাবেক কমিটির যুগ্ম সম্পাদক নাসির উদ্দিন খাঁনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

Sharing is caring!


সর্বশেষ সংবাদ

কামরানহীন সিটি নির্বাচনে আলোচনায় আ.লীগের হাফ ডজন প্রার্থী

কামরানহীন সিটি নির্বাচনে আলোচনায় আ.লীগের হাফ ডজন প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট নগরের মসনদ নিয়ে আওয়ামী লীগের দুঃখ অনেক। দল ক্ষমতায় থাকলেও পরপর দু’বার হাতছাড়া হয় ওই মসনদ। ভোটের

বেগম রোকেয়া দিবস আজ

বেগম রোকেয়া দিবস আজ

ডেস্ক রিপোর্ট ৯ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) বাংলার নারী জাগরণের পথিকৃত বেগম রোকেয়ার ১৪১তম জন্ম ও ৮৯তম মৃত্যুবার্ষিকী। বাংলাদেশে প্রতিবছর এই দিনটিকে

৯ ডিসেম্বর ১৯৭১ : যে সকল এলাকা মুক্ত হয় আজ

৯ ডিসেম্বর ১৯৭১ : যে সকল এলাকা মুক্ত হয় আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ১৯৭১ সালের ৯ ডিসেম্বর দেশের বিভিন্ন এলাকা পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত হয়। আমাদেও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা শুরু ২৯ জানুয়ারি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা শুরু ২৯ জানুয়ারি

ডেস্ক রিপোর্ট জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০ সালের অনার্স ২য় বর্ষ (নিয়মিত, অনিয়মিত ও গ্রেড উন্নয়ন) পরীক্ষা আগামী ২৯ জানুয়ারি থেকে শুরু

বেগম রোকেয়া ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন একজন আধুনিক নারী: প্রধানমন্ত্রী

বেগম রোকেয়া ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন একজন আধুনিক নারী: প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বেগম রোকেয়া ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন একজন আধুনিক নারী। আগামীকাল (৯ ডিসেম্বর) ‘বেগম রোকেয়া দিবস’ উপলক্ষে

জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

ডেস্ক রিপোর্ট ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল

নিজের সন্তান কম হওয়ার জেদের বশে জায়ের সন্তানকে হত্যা!

নিজের সন্তান কম হওয়ার জেদের বশে জায়ের সন্তানকে হত্যা!

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় মুখে আঙুল ঢুকিয়ে আড়াই মাসের এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার দায় স্বীকার

টেস্টেও ধবলধোলাই বাংলাদেশ

টেস্টেও ধবলধোলাই বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক পাকিস্তানের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের আজ পঞ্চম ও শেষ দিনে ইনিংস পরাজয় এড়াতে বাংলাদেশের করতে হতো ২১৩ রান। তবে